Published On: শুক্র, নভে ১১, ২০১৬

বয়স ৮০০ বছর, তবুও সে বালক!

257431_1শতাব্দীর পর শতাব্দী তার কোনো খোঁজ ছিল না। এতদিন পর তার খোঁজ মিলেছে। তাই জানা গেছে তার বয়স হয়েছে এখন প্রায় ৮০০ বছর। তবুও সে আসলে একজন বালক। রুশ বিজ্ঞানীরা তার ডিএনএ মিলিয়ে খুঁজে বের করেছেন তার ‘আত্মীয়’দেরও।

আসলে যার বয়স ৮০০ বছর, তাকে বালক বলা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিভ্রান্তি। আর এটি নিয়ে বিভ্রান্ত হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাহলে জানা যাক আসল রহস্য।

যে বালকের কথা বলা হচ্ছে, তার বয়স বৃদ্ধি আজ থেকে ৮০০ বছর আগেই থেমে গিয়েছে। কারণ বালক বয়সেই তার মৃত্যু হয়েছিল। তার মৃতদেহ মমি করে সংরক্ষণ করা হয়। সম্প্রতি রাশিয়ার সালেখার্দ শহরে মমিটির সন্ধান মিলেছে। কার্বন ডেটিং করিয়ে জানা গিয়েছে মমিটির বয়স ৮০০ বছর।

রাশিয়ায় মমি করে মৃতদেহ সংরক্ষণের রেওয়াজ খুব বেশি ছিল বলে জানা যায় না। কিন্তু ৮০০ বছর আগে এক বালকের মৃতদেহকে মমি করে রাখা হয়েছিল। এই তথ্য প্রত্নতত্ত্ববিদদের যেমন চমকে দিয়েছে, তেমনই চমকে দিয়েছে নৃতত্ত্ববিদদেরও।

মমিটি নিয়ে একাধিক গবেষণা শুরু করেছেন রুশ বিজ্ঞানীরা। রাশিয়ার কোন জনগোষ্ঠীর মধ্যে মমি করার রেওয়াজ ছিল, পরীক্ষা করে জানার চেষ্টা হয়েছে তাও।

মমিটি থেকে ডিএনএ-র নমুনা সংগ্রহ করে বিজ্ঞানীরা পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়েছেন। পরীক্ষায় প্রমাণ পাওয়া গেছে, আধুনিক রাশিয়ায় সাইবেরিয়ান বলে যারা পরিচিত, তাদের ডিএনএ-র সঙ্গে ওই ৮০০ বছরের বালকের ডিএনএ-র মিল রয়েছে। আধুনিক সাইবেরিয়ান জনগোষ্ঠীর পূর্বপুরুষ ওই বালকের বংশধর।

বিডি-প্রতিদিন

(Visited 1 times, 1 visits today)

Editor : Rahmatullah Bin Habib


55/B, Purana Palton, Dhaka-1000


Email : nobosongbad@gmail.com


copyright @nobosongbad.com


বয়স ৮০০ বছর, তবুও সে বালক!